বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে ১০ টি বাক্য

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে ১০ টি বাক্য যা আগে জানতেন না চলুন জেনে নেই। তবে প্রথমে বলে নেই যে বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙালি জাতির অনুপ্রেরণা। এবং ইনার অনুপ্রেরণায় বাঙালিরা একত্রিত হয়েছিল যুদ্ধে নিজের জীবন বিলিয়ে দেওয়ার জন্য।

বঙ্গবন্ধুর এক আহবানের অনুপ্রেরণায় পুরো দেশের নাগরিক একজোট হয় যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করে। বঙ্গবন্ধুর প্রত্যেকটি ঘোষণা ছিল বাঙালীদের জন্য অনুপ্রেরণা যার দ্বারা বাঙালিরা স্বাধীনতা অর্জন করেছে দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পর।

বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে ১০ টি বাক্য
বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে ১০ টি বাক্য

নিচে গুরুত্বপূর্ণ বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে ১০ টি বাক্য উল্লেখ করা হলো:

  • জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ১৯২০ সালের ১৭ ই মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।
  • বঙ্গবন্ধু হচ্ছেন জাতির জনক এবং স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি।
  • ১৯৪২ সালে বঙ্গবন্ধু কলকাতা ইসলামিয়া কলেজে ভর্তি হন এবং পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে ১৯৪৮ সালে ভর্তি হন।
  • ১৯৫৪ সালের ১০ই মার্চ তিনি সাধারণ নির্বাচনে চূড়ান্ত জয়লাভ করেছিলেন।
  • ১৯৬৯ সালের ২৩ শে ফেব্রুয়ারি তিনি বঙ্গবন্ধু উপাধিতে ভূষিত হয়েছিলেন।
  • যুগান্তর ভাষণ “ এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম” – ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ঘোষণা করেছিলেন।
  • ১৯৭১ সালের ২৬ শে মার্চ বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করে করাচিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।
  • ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের লাহোরে বঙ্গবন্ধু ছয় দফা পেশ করেছিলেন।
  • যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রিসভায় কৃষি, বন এবং সমবায় বঙ্গবন্ধু ১৯৫৪ সালে মন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন।
  • ১৯৭৫ সালের ১৫ ই আগস্ট নিজ বাসভবনে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে শহীদ করা হয়েছিল।

এগুলো ছিল বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে দশটি গুরুত্বপূর্ণ বাক্য যা আমরা বঙ্গবন্ধুর মত মহাপুরুষের বৈশিষ্ট্য থেকে খুঁজে পাই। যেহেতু বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙ্গালীদের একটি নতুন অনুপ্রেরণা এবং তাই আমাদেরকে তিনার সম্পর্কে এই দশটি বাক্য গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করতে হবে।

যেহেতু তিন আর এক আহবানে পুরো বাঙালি একত্রিত হয়েছিল তাই তিনাকে নিয়ে এই দশটি বাক্য গুরুত্বপূর্ণ।

বাংলাদেশের জন্য বঙ্গবন্ধুর কিছু অবদান

বাংলাদেশের স্থাপত্য হিসেবে আমরা সকলে বঙ্গবন্ধুকে বিশেষ অনুপ্রেরণা ও শ্রেষ্ঠ বীরপুরুষ হিসেবে চিনে থাকবো। তবে অনেকে তিনার অনুদান সম্পর্কে বলতে পারব না যে তিনি কি অনুদান করেছিলেন বাংলাদেশের জন্য এবং বাঙালি জাতির জন্য।

আর তাই আমরা এখানে কিছু অনুদানের কথা উল্লেখ করবো যেগুলো বঙ্গবন্ধু জীবনে বাঙ্গালীদের জন্য দিয়ে গিয়েছেন। আর অবশ্যই আমাদেরকে এরকম একটি মহাপুরুষের অনুদান সম্পর্কে জানতে হবে কেননা তিনার অনুদানে বর্তমান বাংলাদেশ গঠিত।

নিচে উল্লেখযোগ্য কিছু বাংলাদেশের জন্য বঙ্গবন্ধুর অবদান উল্লেখ করা হলো:

  • দেশের জন্য প্রথম সংগ্রামের ডাক ও বাঙ্গালীদের কে একত্রিত করেছিলেন বঙ্গবন্ধু।
  • বাংলাদেশ স্বাধীন করতে বাঙ্গালীদের কে ঐক্যবদ্ধ করতে ও অনুপ্রেরণা দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু।
  • যুদ্ধের সময় বিভিন্ন প্রকার সহযোগিতা বাঙালিরা যেন উপভোগ করতে পারে তার জন্য চেষ্টা করেছিল বঙ্গবন্ধু।
  • যুদ্ধে যেন বাঙ্গালীদের ক্ষয়ক্ষতি খুব কম হয় সে বিষয়ের উপর ভিত্তি করে চেষ্টা করেছিল বঙ্গবন্ধু।
  • দেশে স্বাধীন হওয়ার পর ধ্বংস হওয়া দেশ পুনরায় অর্থনৈতিকভাবে উন্নত করতে অবদান রেখেছে বঙ্গবন্ধু।
  • অনুদান হিসেবে তিনি দেশে ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেকটি বাঙ্গালীদের কে খাদ্য বস্ত্র দিয়ে সাহায্য করেছিলেন।

এগুলো ছিল বঙ্গবন্ধুর কিছু অবদান এবং বঙ্গবন্ধু টিনা জীবনে বাঙ্গালীদের জন্য যা অনুদান দিয়েছে তা বলা মুশকিল। কেননা তিনি এমন অনেক অনুদান করে গিয়েছেন দেশের জন্য যা এখন পর্যন্ত প্রকাশ হয়নি এবং এটি হচ্ছে মহৎ গুণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুরের।

উপসংহার:

বঙ্গবন্ধু হচ্ছে বাঙালি জাতির জন্য এক অনুপ্রেরণা এবং যুদ্ধ জয়ের প্রধান অধিনায়ক। আর এমন একজন শ্রেষ্ঠ নায়ক সম্পর্কে যদি কোন জ্ঞান না থাকে তাহলে অবশ্যই দুঃখজনক।

আপনি যেন বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জানতে পারেন এবং বুঝতে পারেন সেজন্য এই পোস্টটি প্রস্তুত করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে এই ১০ টি বাক্য জানলে আপনি বঙ্গবন্ধুর অনুপ্রেরণা সম্পর্কে অবগত হতে সক্ষম হবেন।

বঙ্গবন্ধু এই দেশের জন্য জেলখানায় বন্দি হয়েছেন এবং সেই সাথে জেলখানা থেকে বাঙ্গালীদের অনুপ্রেরণা দিয়েছেন।

তিনার অনুপ্রেরণা এবং প্রচেষ্টায় বাঙালিরা অনুপ্রেরিত হয়েছিল যুদ্ধে অংশগ্রহণ করার জন্য।

সেই সাথে বিভিন্ন দেশের নিকট হতে সাহায্য পাওয়ার ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু ভূমিকা পালন করেছিল।

বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে এ বাক্য গুলো জানাও আপনাদেরকে উচিত কেননা তিনি যুদ্ধের মূল বিষয়বস্তু ছিলেন।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top