ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার উপায় । ছেলে ও মেয়েদের ঠোঁটের কালো দাগ দূর

নিচে ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার উপায় দেওয়া হলো:

১) পরিমাণ মতো মধু ও চিনির সাথে পরিমাণ মতো অলিভ অয়েল দিয়ে ৪ মিনিট ঠোঁট ঘষুণ।

২) লেবুর সঙ্গে পরিমাণ মতো গ্লিসারিন মিশিয়ে ঠোঁটে মাখুন এতে ভালো ফলাফল পাবেন।

৩) কমলালেবুর বিচিগুলো সংরক্ষণ করুন এবং প্রতিনিয়ত এগুলি দ্বারা ঠোঁট পরিষ্কার করুন।

৪) টমেটো পেস্ট করে প্রতিদিন ঠোঁট মাখুন দেখবেন আপনার ঠোঁট অনেক উজ্জ্বল হবে।

ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার উপায়
ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার উপায়

৫) আর আপনি হয়তো বা জানেন যে শসার রসও ঠোঁটের কালো দাগ দূর করে। 

৬) মধু, চিনি ও তেল একত্রে মিশ্রণ করে পেস্ট তৈরি করুন এবং এই পেস্ট প্রতিনিয়ত আপনার ঠোঁটে মাখুন। 

৭) ল্যাকটিক এসিড ঠোঁটের জন্য খুবই উপকারী তাই নিয়মিত দুধ দিয়ে ঠোঁট হালকা করে ঘষে নিতে পারেন। দুধের মধ্যে থাকা ল্যাকটিক এসিড শুষ্ক চামড়া তুলে ফেলার মাধ্যমে ঠোঁটের কালো হওয়া দূর করে।

৮) প্রথমে একটি লেবু পাতলা করে কেটে লেবুর উপরে খানিকটা চিনি ছিটিয়ে দিন এবং এটি প্রতিদিন ঠোঁটে ঘুষুণ। চিনি ঠোঁটের মধ্যে থাকা মরা চামড়া পরিষ্কার করে আর লেবু রোদের কারণে ঠোঁটের কালো হয়ে যাওয়া চামড়া উজ্জ্বল করে। 

৯) ঠোঁটের মধ্যে গোলাপি ভাব ফিরিয়ে আনতে গোলাপের পাপড়ি অনেক বড় ভূমিকা পালন করে থাকে। এর জন্য প্রথমে গোলাপের পাপড়িকে দুধের মধ্যে রেখে এর মধ্যে মধু এবং গ্লিসারিন একত্রে করে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

এরপর পাঁচ মিনিট ধরে আপনার ঠোঁটের মধ্যে ধীরে ধীরে মাখুন মাখা হলে আবার দুধ দিয়ে ঠোঁট মুছে নিন। প্রতিদিন এই মিশ্রণটি ব্যবহার করলে আপনার ঠোঁটের কালো দাগ দূর হবে এবং ঠোঁট হবে আকর্ষণীয়।

১০) আর ধূমপান জনিত কারণে যদি আপনার ঠোঁট কালো হয়ে থাকে তাহলে এর চিকিৎসা হচ্ছে আপনাকে ধূমপান ত্যাগ করতে হবে।

উপরে আমি যেগুলো উল্লেখ করেছি এর সবগুলোই ছিল ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার উপায়।

কিছু ঘরোয়া উপায় ছেলেদের ঠোঁটের কালো দাগ দূর হবে

আমাদের মাঝে এমন অনেক ছেলে রয়েছেন যাদের জন্মগতভাবে বা অন্য কোন কারণে তাদের ঠোঁট কালো হয়ে থাকে।

আর তাদের ঠোঁট কালো হওয়ার কারণে তারা অনেক জায়গায় ছোট হয়ে যান বা মনঃক্ষুণ্ হয়ে থাকেন।

তাই এইসব ছেলেদের উপকার করার জন্য আমি ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার উপায় উল্লেখ করলাম যাতে আপনি এগুলো ব্যবহার করতে পারেন। এই সকল ঘরোয়া পদ্ধতি আপনারা নিশ্চিন্ত ভাবে ব্যবহার করতে পারেন এতে কোন প্রকার ক্ষতি হবে না।

কেননা ঘরোয়া পদ্ধতিতে কোন প্রকার লিকুইড বা কোন প্রকার রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করা হয় না যার কারণে এগুলি নিরাপদ।

আপনি প্রতিনিয়ত এগুলি ব্যবহার করেন দেখবেন যে আপনার ঠোঁটের অনেকটি উন্নতি হয়ছে।

যাদের জন্মগতভাবে এই সমস্যা হয়ে থাকে তাদের ক্ষেত্রে এই উন্নতি একটু কম পরিমাণে হয়ে থাকে বা ঠিক হয়না বললেই চলে ।

কিন্তু যাদের জন্মগতভাবে এই সমস্যা হয় না রৌদ্রে পুড়ে এই সমস্যা হয় তাদের ক্ষেত্রে খুব দ্রুত উন্নতি হয়।

কিন্তু যাদের এই সমস্যা জন্মগতভাবে আপনারা মনে করবেন না যে আপনাদের এই সমস্যার কোন সমাধান নেই।

এই সমস্যার সমাধান হচ্ছে আপনাকে এর জন্য ক্রিম ব্যবহার করতে হবে এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

মেয়েদের ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার ঘরোয়া উপায়

সাধারণভাবে আমরা দেখে থাকি যে মেয়েরা তাদের ত্বকের প্রতি বা শরীরের প্রতি অনেক যত্নবান হয়ে থাকে। তবুও কিছু কিছু মেয়ে এমন রয়েছে যাদের ঠোঁট একটু কালো থাকে বা কালো কালো দাগ থাকে যার কারণে তারা মনঃক্ষুণ্ণ হয়। 

তাই তাদের জন্য আজকের আমাদের এই পোস্ট এখানে আমি উপরে উল্লেখ করেছি ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার উপায়।

আমার দেওয়া এই সকল পদ্ধতি বা উপায় গুলোকে আপনি গ্রহণ করুন সে এবং সে অনুযায়ী কাজ করুন।

আপনি যদি আমার দেওয়া এই সকল উপায় এবং পদ্ধতি অনুযায়ী কাজ করতে পারেন তাহলে আপনি অনেক উপকার পাবেন। রৌদ্রে পুড়ে যাওয়ার ঠোঁট গোলাপি করার ক্ষেত্রে এই সকল উপায় বেশিরভাগ কাজ করে থাকে।

কিন্তু আপনার ফটো যদি রৌদ্রের কারণে না হয় জন্মগতভাবে কালো হয় তাহলে এই সকল ঘরোয়া উপায় দিয়ে আপনার হবে না।

আপনাকে এই সমস্যা সমাধানের জন্য চিকিৎসা নিতে হবে বা ক্রিম ব্যবহার করতে হবে এই ক্রিম সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন।

আরও পড়ুন: ঠোঁটের কালো দাগ দূর করার ক্রিম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *