কৃষক কাকে বলে?

কৃষক কাকে বলে: বীজ ও চারা রোপন করে ফসল উৎপাদনকারীকে কৃষক বলে। কৃষক একটি নির্দিষ্ট ভূখন্ড নির্বাচন করে পরিপূর্ণ পরিচর্যা প্রদান করে ফসল উৎপাদন করে।

অর্থশাস্ত্র অনুযায়ী কৃষক বলতে শুধুমাত্র ফসল উৎপাদন করাকে বোঝায় না, মাছ ও অন্যান্য প্রাণী পালন করে উৎপাদন লাভের প্রক্রিয়াকেও বোঝানো হয়। অর্থাৎ পরিপূর্ণ পরিচর্যা করার মাধ্যমে ফসল উৎপাদন সহ অন্যান্য প্রাণী পালন করে জীবন পরিচালনাকারিকে কৃষক বলে।

বাংলাদেশ হচ্ছে কৃষি প্রধান দেশ এবং এই কৃষি উন্নয়নের জন্য দরকার হয় কৃষকের এবং পড়াশোনার জন্য আমাদেরকে এর সংজ্ঞা জানতে হয়। অর্থাৎ কৃষকের কাকে বলে এ বিষয়ে যদি সঠিক কোন উত্তর থাকে তাহলে সেটি হচ্ছে বীজ এবং চারা রোপন করার বিষয়টি।

কৃষক কাকে বলে
কৃষক কাকে বলে?

কেননা আমরা বাংলাদেশের মানুষ শুধুমাত্র বীজ ও চারা রোপন করে ফসল উৎপাদনকারী কে বিশেষভাবে কৃষক বলে আখ্যায়িত করে।

এবং অন্যান্য যে সকল উৎপাদনকারী ব্যক্তি রয়েছে অর্থাৎ মাছ ও পশু পালনকারীদের কে আমরা খামারি বলে আখ্যায়িত করে থাকি।

আর এই সকল বিষয়ের উপর ভিত্তি করে আমরা এটি স্পষ্টভাবে বলতে পারি যে বীজও চারা রোপন করে ফসল উৎপাদন কারীর নাম হচ্ছে কৃষক। কেননা অন্যান্য যে সকল উৎপাদনকারী রয়েছে যেমন মাছ এবং মাংস, সেই সকল পরিশ্রমে ব্যক্তিদেরকে আমরা খামারি বলে থাকি।

তবে সঠিক অর্থ অনুযায়ী বিবেচনা করলে, সকল প্রকার উৎপাদনকারী এবং পরিশ্রমী ব্যক্তিদের আমরা কৃষক বলতে পারে।

যারা আমাদের খাদ্য চাহিদা পূরণ বা নিজের খাদ্য চাহিদা পূরণ করার জন্য কাজ করে থাকে ও উৎপাদন লাভ করতে পারে।

কৃষকের ভূমিকা

আমাদের এই দেশে সম্পূর্ণরূপে কৃষির উপর নির্ভরশীল এবং সেইসাথে খাদ্য চাহিদা পূরণ করার জন্য অবশ্যই কিসের ভূমিকা রয়েছে অনেক বেশি। আর এই কৃষিকে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য প্রয়োজন হয় একজন কৃষকের এবং ইহার দ্বারা বলা যায় কৃষক অনেক ভূমিকা পালন করে থাকে।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে কৃষকের ভূমিকা অপরিসীম এবং বাংলাদেশ হচ্ছে একটি কৃষি প্রধান দেশ।

কৃষি ক্ষেত্রে সকল কাজ করার জন্য কৃষকের প্রয়োজন হয় এবং এই কৃষকের ভূমিকা বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে অনেক বেশি।

কৃষকের কিছু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা সমূহ নিচে উল্লেখ করা হলো:

  • দেশের যে কোন ধরনের উৎপাদন বৃদ্ধিতে কৃষকদের ভূমিকা অপরিসীম।
  • দেশের খাদ্য চাহিদা পূরণ করতে কৃষক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
  • যেকোনো ধরনের খাদ্য দ্রব্য রপ্তানি করার মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি সাধন করে।
  • পশু পালনে দেশের আমিষের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হয়।
  • দেশের যেকোনো ধরনের আর্থিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে সর্বপ্রথম কৃষকরা ভূমিকা পালন করে।

এগুলো হলো কিছু ভূমিকা যে সকল ভূমিকা প্রত্যেকটি কৃষক ভাইয়েরা আমাদের পালন করে থাকে দেশের উন্নয়নের জন্য।

শুধু দেশের উন্নয়নের জন্য কৃষক কাজ করে এমন না বরং কৃষক নিজেও উপকৃত হয় এবং চাহিদা নিবারণ করতে পারে।

শেষ কথা:

কৃষক কাকে বলে এবং বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে কৃষকের ভূমিকা কতটুকু রয়েছে তার উপর ভিত্তি করে এখানে তথ্য উল্লেখ করেছি।

যদি কৃষক সম্পর্কে জানতে বেশি আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আমাদের দেওয়া এই তথ্যগুলো আপনাকে ধারণ করতে হবে নিজের যোগ্যতায়।

আর অবশ্যই যে কথাটি না বললেই নয়, প্রত্যেকটি কৃষক এর মধ্যে রয়েছে অনেক বেশি অভিজ্ঞতা এবং এই অভিজ্ঞতার দ্বারাই কৃষিকাজ সম্ভব। যে কেউ চাইলে কৃষি কাজ করতে পারবে না বা সঠিক মত উৎপাদন লাভ করতে পারবে না বরং এর জন্য দরকার হয় অভিজ্ঞতা।

একজন ব্যক্তি সম্পূর্ণরূপে কৃষক হতে পারবে যখন তার মাঝে অভিজ্ঞতা থাকবে ফসল চাষ করার জন্য ও উৎপাদন লাভ করার জন্য।

প্রয়োজন হবে সঠিক যত্নের যা একজন অভিজ্ঞ কৃষক নিজে অভিজ্ঞতার মাধ্যমে সঠিক সময় যত্ন নিতে পারবে।

আমি আবার বলছি, শুধুমাত্র বীজ ও চারা রোপন করার মাধ্যমে কৃষক হলে হবে না বরং আপনাকে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে সঠিক উৎপাদনের জন্য। বীজ এবং চারা রোপন করে একজন কৃষকের কাজ সমাপ্ত হয়ে যায় এমনটি না বরং উৎপাদন লাভ করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হয়।

আর কৃষকের সংজ্ঞা এমন ভাবে বলতে পারি, বীজ ও চারা রোপন করে কঠোর পরিশ্রম করার মাধ্যমে ফসল উৎপাদনকারীকে কৃষক বলে।

আরও পড়ুন: কৃষি কাকে বলে?

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top