আমিষ জাতীয় খাবার কি কি

আমরা সকলের সুষম খাদ্য সম্পর্কে অবগত আছি এবং আমিষ জাতীয় খাবার হচ্ছে সুষম খাদ্যের অন্তর্ভুক্ত।  বিজ্ঞানীদের মতে আমরা প্রতিনিয়তই ২০ থেকে ৩০ ভাগ খাদ্য আমিষ খেয়ে থাকি। আমিষ হচ্ছে আমাদের সুষম ছয়টি খাদ্য উপাদান এর মধ্যে একটি।

আমিষ জাতীয় খাবার কি কিযে সকল খাদ্যদ্রব্য হতে আমরা খাদ্যের উপাদান হিসেবে প্রোটিন পেয়ে থাকে সেগুলোকে আমিষ খাদ্য বলে। মাছ, মাংস, দুধ, ডিম, শুটকি মাছ, শুটকি জাতীয় খাবার ইত্যাদি হলো আমিষ জাতীয় খাবারের অন্তর্ভুক্ত।

আমিষ জাতীয় খাবার কি কি

আমিষ জাতীয় খাবার সমূহকে দুইটি মূল ভাগে ভাগ করা যায়, যথা: ১.)  প্রাণিজ-আমিষ এবং ২.)  উদ্ভিদ আমিষ।

১.) প্রাণিজ আমিষ: যে সকাল আমিষ জাতীয় খাদ্যের উপাদান আমরা প্রাণী হতে পেয়ে থাকি সেগুলোকে প্রাণিজ আমিষ বলা হয়।

মাছ, মাংস, দুধ, ডিম এবং শুটকি ইত্যাদি হলো প্রাণিজ আমিষ এর উদাহরণ।

২.) উদ্ভিদ  আমিষ: যে সকল আমিষ জাতীয় খাদ্যের উৎস উদ্ভিদ হতে আগত বা উদ্ভিদ থেকে আসে সেগুলোকে উদ্ভিদ আমিষ বলে।

ডাল, বাদাম, মটরশুঁটি, সিমের বিচি এবং সয়াবিন তেল ইত্যাদি হলো উদ্ভিদ আমিষ এর উদাহরণ।

আমিষ জাতীয় খাবারের তালিকা

আমরা ইতিমধ্যে আমিষ জাতীয় খাবার সম্পর্কে নাম জেনেছি এবং এমন অনেক খাদ্যের নাম আমরা বলতে পারি যেগুলো আমিষের অন্তর্ভুক্ত।

তবে সঠিক মতো কোনো প্রকার তালিকা না থাকায় আমরা এই খাদ্যগুলোকে আমিষের সঙ্গে পরিপূর্ণ রূপে সাজাতে পারিনা।

আর আপনি যেন পরিপূর্ণরূপে আমিষের এই খাদ্যগুলোকে সাজাতে পারেন একটি নির্দিষ্ট তালিকায় ভুক্ত করে। সেজন্য আমি এই পোষ্টের মাধ্যমে চেষ্টা করব আপনাকে আমি জাতীয় খাদ্যের তালিকা প্রদান করার যেখানে আমিষের উপাদান ক্রমান্বয়ে থাকবে।

নিচে আমিষ জাতীয় খাবারের তালিকা গুলো উল্লেখ করা হলো:

  • মাছ,  মাংস,  দুধ,  ডিম এবং শুটকি ইত্যাদি।
  • ডাল,  বাদাম, মটরশুঁটি, সিমের বিচি এবং সয়াবিন তেল ইত্যাদি।
  • প্রোটিন সম্পন্ন বা স্বল্প প্রোটিন সম্পন্ন বিভিন্ন ধরনের খাবার।
  • চিকেন, পাস্তা, মুরগির ও অন্যান্য পশুর গিরিল ইত্যাদি।

এখানে আমিষ জাতীয় খাবার এই বিষয়ে পরিপূর্ণ জ্ঞান অর্জনের জন্য আমি যত খাবার তালিকা সম্পর্কে আমাদের জানা জরুরী ছিল।  তাই এখানে আমি আমিষ জাতীয় খাবার তালিকা আপনাদের মাঝে উপস্থিত করেছি এবং এই তালিকা দ্বারা আপনারা খুব দ্রুত আমি যত খাবারকে চিহ্নিত করতে পারবেন।

আমি যত খাবারের রয়েছে অনেক বেশি পুষ্টি এবং সুস্থ থাকার জন্য আমাদেরকে প্রয়োজনীয় আমিষ গ্রহণ করতে হয়।

আপনি যেন আপনার প্রয়োজনীয় সকল পুষ্টি ও পূরণ করতে পারেন তার জন্য এখানে কিছু আমিষের উল্লেখ করা হয়েছে।

আপনি আপনার আমিষ জাতীয় খাদ্যের চাহিদা পূরণ করার জন্য উল্লেখিত তালিকায় অন্তর্গত খাদ্য গুলো গ্রহন করতে পারেন। অবশ্যই আপনি যদি এই খাদ্যগুলো গ্রহণ করেন আপনার আমি জাতীয় খাদ্যের চাহিদা খুব দ্রুত পূরণ হবে এবং আপনার শরীর স্বাস্থ্য ঠিক থাকবে।

শেষ কথা:

আমিষ জাতীয় খাবার কি কি এবং এর তালিকাতে কিরূপ হওয়া উচিত সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে পোস্টটিতে।

আমিষ হচ্ছে সুষম খাদ্যের পুষ্টি উপাদান গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি পুষ্টি উপাদান যা আমাদের শরীরের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

অবশ্যই সুজন খাদ্যের চাহিদা পূরণ করার ক্ষেত্রে আপনাকে আমাকে আমিষের চাহিদা পূরণ করার ব্যাপারে নজর রাখতে হবে। কেননা আমিষের চাহিদা পূরণ হওয়ার মাধ্যমে সুষম খাদ্যের একটি ধাপ খুব সহজে পূরণ করা সম্ভব হবে শারীরিক পুষ্টি পূরণের জন্য।

আমিষ বলতে আমরা সাধারণত মাছ-মাংস কে বুঝে থাকে তবে এমনটা মোটেও সত্য কথা নয়।

কেননা আমি জাতীয় খাদ্য তালিকায় এমন আরও অনেক নাম উল্লেখ রয়েছে যেগুলোর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আমি উপাদান পাওয়া যায়। আর আমি উপরে নাম উল্লেখ করেছে যেগুলো আপনার আমার আমিষের চাহিদা অনায়াসে পূরণ করতে সক্ষম হতে পারে।

আশা করি উল্লেখিত তালিকায় অন্তর্গত খাবারগুলো আপনি গ্রহণ করবেন এবং আপনার আমিষের চাহিদা পূরণ করে শারীরিক ঘাটতি মেটাবেন।

আরও পড়ুন: অতি পুষ্টি কাকে বলে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!